ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • বুধবার   ১২ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৮ ১৪২৭

  • || ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
৮১

৪৬ হাজার বছর আগের পাখির সন্ধান, এখনো যেন জীবন্ত!

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

রহস্যঘেরা সাইবেরিয়ার তুষারাবৃত মাটির তলা। সম্প্রতি বিজ্ঞানীরা সেখানে খুঁজে পেয়েছেন ৪৬ হাজার বছর আগের এক হর্নড লার্ক পাখির মরদেহ। কয়েক হাজার বছর পেরিয়ে গেলেও পাখিটির শরীরে তেমন পচন ধরেনি। দেখলে এখনো জীবন্তই মনে হয়।

তুষারের স্তুপের তলায় চাপা পড়ে থাকায় এত বছরেও পচন তো ধরেনি, উল্টো এমনভাবে সংরক্ষিত রয়েছে যে মরদেহ থেকে পাখিটির জিনগত তত্ত্বও উদ্ধার করতে পেরেছেন প্রাণীবিজ্ঞানীরা। 

সুইডেনের স্টকহোম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণীবিজ্ঞান শাখার গবেষক নিকোলাস ডাসেক্স জানান, সাইবেরিয়ার তুন্দ্রা এবং মোঙ্গোলিয়ার স্টেপ তৃণভূমিতে বর্তমানে বিচরণ করা হর্নড লার্ক পাখির সংমিশ্রিত পূর্বপুরুষ এই হর্নড লার্কের মরদেহ।

কমিউনিকেশনস্‌ বায়োলজিতে প্রকাশিত সাম্প্রতিক রিপোর্টে হর্নড লার্কের মরদেহের কথা উল্লেখ করে বিজ্ঞানীরা লিখেছেন, শেষ তুষার যুগের সময় ইউরোপ এবং এশিয়ার উত্তরাংশে বিস্তৃত এই তৃণভূমিতে একসময় দাপিয়ে বেড়াত লোমশ ম্যামথ এবং লোমশ গন্ডার। 

গবেষকদের মতে, সাইবেরিয়ার এই অঞ্চল আসলে স্টেপ, তুন্দ্রা এবং সরলবর্গীয় বনের সংমিশ্রন ছিল। শেষ তুষার যুগের সমাপ্তিকালে অঞ্চলটি তিনভাগে ভাগ হয়ে যায়-উত্তরে তুন্দ্রা, মধ্যাংশে টাইগা এবং দক্ষিণে স্টেপ তৃণভূমিতে।

বিজ্ঞানীরা মনে করছেন, এই পাখির মরদেহ থেকেই বোঝা যাবে কীভাবে হর্নড লার্কের বিবর্তন হয়েছে। 

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর