ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’

শনিবার   ১৯ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৪ ১৪২৬   ১৯ সফর ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
৬০

সুদের টাকা না পেয়ে ফাটালেন নারীর মাথা

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে সুদ ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে সুদের টাকা না পেয়ে এক নারীর মাথা ফাটানোর অভিযোগ উঠেছে। আহত ওই নারী ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

বুধবার সকালে উপজেলার রামগোপালপুর ইউপির বাহাদুরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত সাবিনা বেগম ওই এলাকার বাসিন্দা। 

সাবিনা বেগমের ছোট বোন গার্মেন্টস কর্মী সুলতানা আক্তার জানান, প্রায় আট মাস আগে প্রতিবেশী শরিফার কাছ থেকে সুলতানার অজান্তে ৫০ হাজার টাকা ধার নেন স্বামী মিন্টু মিয়া। টাকা ধার নেয়ার পর তাকে ছেলে আত্মগোপনে যান মিন্টু। এদিকে স্বামী আত্মগোপনে চলে যাওয়ার পর আর্শেদ আলী ও তার লোক সুদের টাকার জন্য সুলতানাকে নানা হুমকি দেন। সুদের টাকা না পেয়ে আর্শেদ আলী ও তার লোক সুলতানার বাড়িতে এসে হামলা করে। এ সময় তার বড় বোন সাবিনা বেগম এগিয়ে এলে তার মাথায় লাঠি দিয়ে আঘাত করে তারা। এতে তিনি রক্তাক্ত হলে ময়ময়নসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

তিনি আরো জানান, তার সঙ্গে মিন্টু মিয়ার কোনো যোগাযোগ নেই। তবুও টাকার জন্য তার ওপর চাপ সৃষ্টি করা হচ্ছে। 

অভিযুক্ত আর্শেদ আলী জানান, গাজীপুরের শ্রীপুর গড়গড়ীয় মাস্টারবাড়ি এলাকায় গার্মেন্টসে চাকুরির সময় শরীফা মিন্টুকে ৫০ হাজার টাকা ঋণ দিয়েছিল। ঋণ নেয়ার কিছুদিন পর মিন্টু আত্মগোপন করেন। পরে টাকা পরিশোধের জন্য তার স্ত্রী সুলতানাকে জানালে তিনি টাকা শোধের জন্য কয়েকটি তারিখ করেন। এ নিয়ে সম্প্রতি সালিশ হলে সেখানে সুলতানা উপস্থিত হননি।

তিনি আরো জানান, সালিশে উপস্থিত না থাকার কারণ জানতে সুলতানার বাড়িতে যান আর্শেদ। এ সময় সুলতানা অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন। এক পর্যায়ে সুলতানার চাচা কবির লাঠি দিয়ে তাদের আঘাত করলে সেই আঘাত সাবিনা বেগমের ওপর পড়ে।

এদিকে আর্শেদ আলীর বক্তব্যকে মিথ্যা ও বানোয়াট বলে দাবি করেন সুলতানা আক্তার। 

গৌরীপুর থানার ওসি (তদন্ত) গোলাম মাওলা বলেন, এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী নারী লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। ঘটনাটি তদন্ত করে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

আজকের ময়মনসিংহ
আজকের ময়মনসিংহ
এই বিভাগের আরো খবর