ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • শনিবার   ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ||

  • ফাল্গুন ১০ ১৪২৬

  • || ২৭ জমাদিউস সানি ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
১৩৪

শুধু বেঁচে রইল অবুঝ শিশুটি

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ১৭ আগস্ট ২০১৯  

সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ গেছে পাঁচ সদস্যের পরিবারের চারজনেরই। মা-বাবা-ভাই-বোনকে হারিয়ে অনেকটা অলৌকিকভাবে বেঁচে রইল পরিবারের সর্বকনিষ্ঠ সদস্য তিন বছরের অবুঝ শিশু নাহিদ ইসলাম। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবুঝ ওই শিশুটি যে চিরদিনের মতো এতিম হয়ে গেল তা বুঝার বিন্দু মাত্র ক্ষমতা তার নেই।

ময়মনসিংহের গৌরীপুরে বাস-প্রাইভেটকার সংঘর্ষে নিহত চার জন হলেন ছোট্ট নাহিদের মা-বাবা-ভাই-বোন। তারা সবাই প্রাইভেটকারের যাত্রী ছিলেন। পরিবারের একমাত্র বেঁচে যাওয়া সদস্য তিন বছরের শিশুপুত্র নাহিদ ও প্রাইভেটকারচালক সেলিমকে গুরুতর আহত অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন নরসিংদীর মাধবদী বাংলা টেক্সটাইলের মালিক রফিকুল ইসলাম (৪৫), তার স্ত্রী শামসুন্নাহার শাহানা (৩৫), কলেজপড়ুয়া ছেলে নাবিল ইসলাম (১৮) ও মেয়ে রওনক জাহান (১৩)।

তাদের গ্রামের বাড়ি নেত্রকোনা জেলার সুসং দুর্গাপুরে। বসবাস করতেন নরসিংদী জেলার মাধবদীতে। তারা সপরিবারে ঈদের ছুটিতে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মধুপুরে শ্বশুরবাড়িতে এসেছিলেন।

পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা জানান, রফিকুল ইসলাম ও তার পরিবারের লোকজন ঈদের ছুটি শেষে নিজের প্রাইভেটকারে ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মধুপুরে শ্বশুরবাড়িতে এসেছিলেন। বেলা সাড়ে ১১টার দিকে ময়মনসিংহ-কিশোরগঞ্জ সড়কের গৌরীপুর উপজেলার রামগোপালপুর নামক স্থানে পৌঁছালে কিশোরগঞ্জগামী এমকে পরিবহনের দ্রুতগতির অপর একটি বাস ওভারটেক করার সময় চাপা দেয়। এতে প্রাইভেটকারটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই রফিকুল ইসলামের স্ত্রী শামসুন্নাহার শাহানা মারা যান।

খবর পেয়ে স্থানীয় বাসিন্দা, পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের লোকজন দ্রুত ঘটনাস্থল পৌঁছে গুরুতর আহত অবস্থায় রফিকুল ইসলাম, তার দুই ছেলে নাবিল ইসলাম ও নাহিদ, কন্যা রওনক জাহান এবং প্রাইভেটকারচালক সেলিমকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে এলে চিকিৎসক রফিকুল ইসলাম, নাবিল ইসলাম ও রওনক জাহানকে মৃত ঘোষণা করেন।

গৌরীপুর থানার ওসি কামরুল ইসলাম মিয়া জানান, পুলিশ বাসটি আটক করেছে তবে চালক পালিয়ে গেছে।

আজকের ময়মনসিংহ
আজকের ময়মনসিংহ
ময়মনসিংহ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর