ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • শুক্রবার   ০৭ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৩ ১৪২৭

  • || ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
১০৩

রেস্টুরেন্টের যে জিনিসগুলো কর্মীরা পরিষ্কার করে না

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ১৩ জানুয়ারি ২০২০  

মজার মজার খাবার উপভোগ করতে হোটেল কিংবা রেস্টুরেন্টে প্রায়ই নিশ্চয় যাওয়া হয়। দেখতে চকচকে পরিষ্কার আর মনোরম পরিবেশে পছন্দের খাবার খাওয়ার অনুভূতিটাই অন্যরকম।

তবে জানেন কি, এই চকচকে পরিষ্কার রেস্টুরেন্টগুলোতেও কিছু কিছু জিনিস থাকে যা সব সময় কর্মীরা পরিষ্কার করে না। যেগুলো স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর হয়ে থাকে। রিডার্স ডাইজেস্ট বেশ কিছু রেস্টুরেন্টের ওপর জরিপ চালিয়ে এমনই কিছু জিনিসকে চিহ্নিত করেছে। চলুন জেনে নেয়া যাক সেই জিনিসগুলো সম্পর্কে-

খাবারের তালিকা
রেস্টুরেন্টে খেতে গেলে খাবারের তালিকাটি অবশ্যই হাতে নিতে হয়। যা মাসের দিনের পর দিন, মাসের পর মাস এমনকি বছরের পর বছরও নানা মানুষের হাতে ঘুরে বেড়ায়। জানেন নি, এই তালিকাটি শতকরা ৯৫ ভাগ রেস্টুরেন্টের কর্মীরা পরিষ্কার করেন না। চিকিৎসকের মতে, এই চার্ট থেকে হাত ঘুরে ঘুরে প্রায় ২ লাখের মতো ব্যাকটেরিয়া ছড়াতে পারে!

চেয়ার
রেস্টুরেন্টে যে চেয়ারটিতে বসে আপনি খাবার খেয়ে থাকেন, তাও কর্মীরা নিয়মিত পরিষ্কার করেন না। এখান থেকেও ছড়াতে পারে ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া। কারণ দিনের পর দিন ব্যবহার হওয়ায় সেটিতে ময়লা পড়ে যায়।  

প্লাস্টিক গ্লাভস
রান্নার সময় রাঁধুনিরা প্লাস্টিক গ্লাভস ব্যবহার করেন। যা নিয়মিত পরিষ্কার করা খুব জরুরি। তবে দেখা গেছে, অধিকাংশ হোটেলের বাবুর্চিরা এই গ্লাভস পরিষ্কার করেন না এবং অপরিষ্কার রেখেই তা আবার ব্যবহার করেন।

দ্য কমপ্লিট ইডিয়ট’স গাইড টু স্টার্টিং অ্যা রেস্টুরেন্টের লেখক হোয়ার্ড ক্যানন বলছেন, ‘অপরিষ্কার প্লাস্টিক গ্লাভস খুব বিপজ্জনক। কিন্তু আমি দেখেছি অনেক বাবুর্চি নিয়মিত এটি পরিষ্কার করেন না।’

লবণ-মরিচের পাত্র
রেস্টুরেন্টের অধিকাংশ কর্মীই লবণ-মরিচের পাত্র পরিষ্কার করা প্রয়োজন মনে করেন না। তবে ইউনিভার্সিটি অব অ্যারিজোনার একটি গবেষণায় দেখা গেছে, লবণ কিংবা মরিচের পাত্র থেকে প্রচুর পরিমাণে ব্যাকটেরিয়া জন্মায়। অবাক করার বিষয় হলো, এই ব্যাপারটি কেউ খেয়ালই করেন না।

তাই আজ থেকে এই বিষয়গুলো খেয়াল করুন এবং নিজের ও প্রিয়জনের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় সচেতন থাকুন।

লাইফস্টাইল বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর