ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • বৃহস্পতিবার   ০৪ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২১ ১৪২৭

  • || ১২ শাওয়াল ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
৮২

যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেনে অস্ত্র সরবরাহ করছে যুক্তরাষ্ট্র, ভিডিও প্র

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ৮ নভেম্বর ২০১৯  

যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেনের হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলনের গেরিলাদের পরাজিত করার জন্য যুক্তরাষ্ট্র গোপনে বিরোধী শক্তির কাছে অস্ত্র সরবরাহ করছে।

বুধবার মার্কিন টেলিভিশন চ্যানেল সিএনএন-এ সম্প্রচারিত একটি ফুটেজে এই চিত্র দেখা গেছে। এতে দেখা যায়- খুব ভোরে অন্ধকারের মধ্যে মার্কিন নির্মিত আরমর্ড ভেহিকেলে করে এসব অস্ত্র ইয়েমেনের বন্দরনগরী এডেনে নেয়া হচ্ছে। এসব অস্ত্র সরবরাহ করার অর্থ হচ্ছে সৌদি আরবকে সমর্থন দেয়া এবং যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেনের বিরুদ্ধে সৌদি আগ্রাসনকে জোরদার করার প্রচেষ্টা চালানো।

ইয়েমেনে সৌদি আগ্রাসনের ব্যাপারে আমেরিকা বরাবরের মতো দ্বৈতনীতি গ্রহণ করেছে। মার্কিন সরকার একদিকে বলছে, ইয়েমেনে আগ্রাসন বন্ধের ব্যাপারে তারা কার্যকর ভূমিকা নিচ্ছে আবার সৌদি আরব এবং তার সমর্থকদের কাছে আমেরিকা অস্ত্র পাঠাচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে এরইমধ্যে মার্কিন রাজনীতিতে বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে এবং মার্কিন কংগ্রেসের অনেক সদস্য বলছেন, প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রশাসন সৌদি-প্রীতির কারণে এসব অস্ত্র সরবরাহ অব্যাহত রেখেছে।
প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পর সর্বপ্রথম বিদেশ সফরে তিনি সৌদি আরব গিয়েছিলেন এবং সেখানে ১১ হাজার কোটি ডলারের বিশাল অস্ত্র চুক্তি সই করেছিলেন।

২০১৫ সালের ২৬ মার্চ থেকে সৌদি আরব ইয়েমেনের ওপর বর্বর আগ্রাসন শুরু করে এবং এখন পর্যন্ত তা অব্যাহত রয়েছে। সৌদি আগ্রাসনে এ পর্যন্ত হাজার হাজার ইয়েমেনি নাগরিক হতাহত হয়েছেন। এছাড়া, লাখ লাখ মানুষ উদ্বাস্তু হয়েছেন এবং দেশটি কার্যত ধ্বংসস্তূপে পরিণত হয়েছে। মার্কিন সরকার মুখে মানবতার বুলি আওড়ালেও ইয়েমেনের নিরীহ লোকজনকে হত্যায় সৌদি আরবকে অব্যাহতভাবে মদদ দিয়ে যাচ্ছে।

আন্তর্জাতিক বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর