ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • বৃহস্পতিবার   ০৪ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২১ ১৪২৭

  • || ১২ শাওয়াল ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
২৪৯

ময়মনসিংহের তোতা মিয়ার জীবনের গল্পটা অন্য রকম

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ১৮ অক্টোবর ২০১৯  

৭১ বছর বয়সে সন্তানের বাবা হয়ে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন ময়মনসিংহের মো. হাবিবুর রহমান তোতা মিয়া। স্বাবলম্বী ও স্বনির্ভর হয়ে ৬৯ বছর বয়সে বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন তিনি।

জেলার মুক্তাগাছা উপজেলার তারাটি ইউপির কলাদিয়া গ্রামের বাসিন্দা তোতা মিয়া সাত ভাই বোনের সর্ব কনিষ্ঠ। ২০ একর জমির মালিক তোতা মিয়া নিজ নামে সরকারি প্রাথমিক স্কুল, কওমি মাদ্রাসা, জামে মসজিদ, কবরস্থান, ঈদগাহ মাঠ প্রতিষ্ঠা করেছেন। এছাড়া একটি কলেজ ও বৃদ্ধাশ্রম গড়ে তুলতে ২ একর জমিও দান করেছেন তোতা মিয়া।

জানা গেছে, স্বাবলম্বী, স্বনির্ভর ও আত্মবিশ্বাসী হাবিবুর রহমান নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে সময় নিয়েছেন ৬৯ বছর। 

দরিদ্র পরিবারের এক কন্যা সন্তানের জননী স্বামী পরিত্যক্তা একই উপজেলার কুমারগাতা ইউপির মনতলা গ্রামের ২৩ বছর বয়সী আকলিমা খাতুন সম্মত হন তোতাকে বিয়ে করতে। বিয়ের দুই বছরের মধ্যেই ১৮ জুলাই এই দম্পতি এক পুত্রসন্তান লাভ করেন। তোতা মিয়া সন্তানের নাম দিয়েছেন মো. আল রহমত উল্লাহ।

তোতা মিয়া জানান, শৈশব থেকে স্বাবলম্বী হয়ে ওঠতে আমাকে অনেক ধাপ পার হতে হয়েছে। কলা, আলু চাষাবাদ করে আজ সম্পদের মালিক হয়েছি। মানুষের কল্যাণে প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছি। এজন্য আমাকে কঠোর পরিশ্রম করতে হয়েছে। সফল হতে গেলে বয়স লাগে না।

তিনি আরো জানান, ওকে নিয়েই আমার এখন সবচেয়ে বেশি সময় কাটছে। ওই এখন আমার জীবনের নির্ভরযোগ্য বন্ধন।

ময়মনসিংহ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর