ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • মঙ্গলবার   ১৪ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৯ ১৪২৭

  • || ২৩ জ্বিলকদ ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
৩৭২

ময়মনসিংহের অপহৃত ৯ম শ্রেণির ছাত্রী ঢাকায় উদ্ধার

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ২০ মার্চ ২০২০  

বিয়ের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ময়মনসিংহের মুক্তাগাছার ৯ম শ্রেণির ছাত্রীকে অপহরণ করে মুক্তাগাছার কুমারগাতার সত্রাশিয়া গ্রামের মোখলেছুর রহমানের ছেলে বখাটে নেশাগ্রস্ত জাফর। অপহরণের ৫ দিন পর বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) বেলা ১১টার দিকে রাজধানীর বংশাল এলাকা থেকে অপহৃতাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এলাকাবাসী জানায়, মুক্তাগাছার কুমারগাতার সত্রাশিয়া গ্রামের নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া স্কুলছাত্রীকে বিয়ের প্রস্তাব দেওয়ার পাশাপাশি প্রতিদিন পথে বিরক্ত করত একই এলাকার মোখলেছুর রহমানের ছেলে বখাটে নেশাগ্রস্ত জাফর। কিন্তু নেশাগ্রস্ত জাফরের কাছে কিছুতেই বিয়ে দিতে রাজি ছিল না ওই ছাত্রীর বাবা-মা। এ নিয়ে বিভিন্ন সময় বাড়িতে ঢুকে স্কুলছাত্রীর মাকে মারধরও করত বখাটে জাফর। এর পরও মেয়ের বিয়েতে রাজি হননি তারা। পরবর্তী সময়ে গত শনিবার (১৪ মার্চ) রাত ২টার দিকে জাফর তার কয়েকজন সহযোগীকে নিয়ে ওই স্কুলছাত্রীর বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় ঘরের টিনের বেড়া কেটে ঢুকে তার বাবা ও মাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর আহত করে। একপর্যায়ে বখাটেদের হাত থেকে বাঁচতে স্কুলছাত্রী বাড়ির পাশে পুকুরে ঝাঁপ দিলে তাকে ধরে আনা হয়। এ সময় স্কুলছাত্রী যেতে রাজি না হলে তাকে ব্যাট দিয়ে পিটিয়ে এমনকি ব্যাটের আঘাতে দাঁত ভেঙে গেলেও রক্তাক্ত অবস্থায় তুলে নিয়ে যায় বখাটে জাফর ও তার লোকজন। এ ঘটনার পর স্কুলছাত্রীর বাবাকে আহত অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং থানায় অভিযোগ দেওয়া হয়।

মুক্তাগাছা থানার ওসি বিপ্লব কুমার বিশ্বাস বলেন, ‘প্রযুক্তির সহায়তায় অনেক চেষ্টার পর ঢাকার বংশাল এলাকা থেকে বংশাল থানা পুলিশ মেয়েটিকে উদ্ধার করেছে।’

ময়মনসিংহ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর