ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • বুধবার   ১২ আগস্ট ২০২০ ||

  • শ্রাবণ ২৭ ১৪২৭

  • || ২২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
২৭৮

মুক্তাগাছায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ১৮ নভেম্বর ২০১৯  

মুক্তাগাছা শহরের ইশ্বরগ্রামের মাঝিপাড়া এলাকা থেকে শিহাবুল ইসলাম শিশির নামে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীর লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ । আজ রবিবার দুপুরে তার মৃতদেহ ওই এলাকার একটি ডোবা থেকে উদ্ধার করা হয়। সে দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুড এন্ড প্রসিসিং বিভাগের ২য় বর্ষের ছাত্র ছিল। তার বাড়ি মুক্তাগাছা শহরের লক্ষীখো এলাকায়। পুলিশের ধারণা সে মাদকাসক্ত হয়ে মারা যেতে পারে।

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা শহরের লক্ষীখোলা এলাকার অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য খন্দকার হাবিবুর রহমানের ছেলে শিহাবুল ইসলাম শিশির দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ফুড এন্ড প্রসিসিং বিভাগে লেখাপড়া করত। বিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া অবস্থায় সে মাদকাসক্ত হয়ে পড়ে। এ বছর জুন মাসে মুক্তাগাছা থানায় তার নামে মাদক মামলা হয়। ওই মামলায় সে জেলও খাটেন। মাদকের টাকার জন্য তার বাবা মা’র সাথে প্রায়ই ঝগড়া হত। এ নিয়ে বাবা-মা সব সময় অশাস্তিতে ভুগতেন।

নিহত শিশিরের বাবা খন্দকার হাবিবুর রহমান বলেন, তার ছেলে কবে, কখন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মুক্তাগাছায় ফিরেছে বিষয়টি তাদের জানা নেই। থানা পুলিশের লাশ উদ্ধারের পর তারা জানতে পারেন তাদের সন্তান মারা গেছে।  এর বাইরে সে আর কিছুই জানেন না।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ময়মনসিংহ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল আমিন বলেন, এ বছর জুন মাসে সে মাদকদ্রব্যসহ মুক্তাগাছা থানা পুলিশের কাছে গ্রেফতার হয়। এছাড়া তার জামার পকেটে মাদকের আলামত পাওয়া গেছে। এতে ধারণা করা হচ্ছে মাদকাসক্ত হয়ে ডোবায় পড়ে মারা যেতে পারে।

ময়মনসিংহ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর