ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • শনিবার   ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ১১ ১৪২৭

  • || ০৮ সফর ১৪৪২

আজকের ময়মনসিংহ
৮০

পেঁয়াজের ব্যবহার কমিয়ে নিজের ক্ষতি ডেকে আনছেন না তো?

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯  

পেঁয়াজের দাম এখানো আকাশচুম্বী। তারপরও মানুষ পেঁয়াজ খাওয়া বন্ধ করেনি! এই উপাদানের জনপ্রিয়তা কতটুকু এর থেকেই স্পষ্টত! তবে পেঁয়াজ আমরা কেন খাই? রান্নায় কেনই বা এটি ব্যবহার করতে হয়? এসব প্রশ্নের উত্তর নিয়ে আমরা ক’জনেই বা ভেবে থাকি!

বিভিন্ন পদের রান্না, সালাদ থেকে স্যান্ডউইচ, কিংবা শুধু মুড়ি মাখাতে অথবা যেকোনো ভর্তায়, পেঁয়াজ ছাড়া যেন চলেই না! তবে পেঁয়াজের এই চড়া দামের মুহূর্তে অনেকেই হয়ত পেঁয়াজ খাওয়া বন্ধ করেছেন কিংবা কম খাচ্ছেন! তবে জানেন কি  এতে ক্ষতি হচ্ছে কিন্তু আপনারই। এটি স্বাস্থের পক্ষে কতটা উপকারী জানলে আপনি সত্যিই অবাক হতে বাধ্য। প্রয়োজনীয় পুষ্টিগুণের সঙ্গে এতে ফাইটোকেমিক্যাল রয়েছে, যা আমাদের শরীরে নানা উপকারে আসে। জেনে নিন পেঁয়াজের গুণাগুণ-

সংক্রমণ সারায়- পেঁয়াজে কার্মিনেটিভ, অ্যান্টি-মাইক্রোবায়াল, অ্যান্টিসেপ্টিক এবং অ্যান্টি- বায়োটিক জাতীয় পদার্থ মজুত রয়েছে। তাই শরীরে কোথাও সংক্রমণ ঘটে থাকলে কাঁচা পেঁয়াজ একটু বেশি খান, চটজলদি উপকার পাবেন।

পুষ্টিগুণে ভরপুর- প্রচুর পরিমাণে বিভিন্ন ভিটামিন, মিনারেল, ফাইবার, ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম, সালফার, ভিটামিন বি এবং সি থাকে।

জ্বর-সর্দিতে অসাধারণ কাজ করে- ঠাণ্ডা লাগার ফলে গলা ব্যথা, সর্দি-কাশি, জ্বর, অ্যালার্জি বা সামান্য শরীর ব্যথায় দারুণ কাজ করে। সামান্য পেঁয়াজের রসের সঙ্গে একটু মধু মিশিয়ে খান। জলদি সেরে উঠবেন।

দেহের তাপমাত্র কমায়- জ্বরে দেহের তাপমাত্রা বেশি থাকলে পাতলা করে কাটা পেঁয়াজ কপালে রাখলে কিছু ক্ষণের মধ্যে তাপমাত্রা কমিয়ে দেবে।

নাক থেকে রক্ত পড়া বন্ধ- গ্রীষ্মে বা শীতে অনেকের নাক থেকে রক্তপাত হয়। যদি এ সময়ে কাছাকাছি পেঁয়াজ থাকে তাড়াতাড়ি কেটে তার ঘ্রাণ নিতে থাকুন। রক্তপাত কমে যাবে বা একেবারে বন্ধ হয়ে যাবে।

হজমশক্তি বাড়ায়- যাদের হজমে সমস্যা রয়েছে তারা রোজ একটু কাঁচা পেঁয়াজ খান। পেঁয়াজ খাবার হজমের জন্য প্রয়োজনীয় বিভিন্ন এনজাইম বাড়াতে সাহায্য করে। যার ফলে দ্রুত খাবার হজম হয়।

ত্বকের সমস্যা মেটায়- পোকামাকড়ের কামড় হোক বা রোদে পোড়া ট্যান কিংবা ব্রণ-ফুসকুড়ি সবেতেই ভরসা পেঁয়াজ। এ সবের সমস্যা থাকলে সে সমস্ত জায়গায় একটু পেঁয়াজের রস লাগান। একটু চুলকানি বা জ্বালা করতে পারে, তবে দ্রুত কাজ করবে।

ক্যান্সারের সঙ্গে লড়ে- কোলন ক্যান্সারের মতো রোগের সঙ্গে লড়তে সাহায্য করে।

হার্ট এবং হাড় ভালো রাখে- হাড়ের কঠিন ব্যারাম অ্যাথেরসক্লেরোসিস এবং অস্টিওপোরোসিসের মতো রোগের সঙ্গে লড়ে। তার সঙ্গে দেহে খারাপ কোলেস্টেরল কমায়। যার ফলে আপনার হার্ট সুস্থ থাকে।

ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য ভালো- দেহে ইনসুলিনের মাত্রা বাড়াতে এবং রক্তে শর্করার মাত্রা ঠিক রাখতে পেঁয়াজ অত্যন্ত ভালো। যারা ডায়াবেটিক তারা চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়ে রোজ পেঁয়াজ খান।

সূত্র: লাইভসাইন্স

স্বাস্থ্য বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর