ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • সোমবার   ৩০ মার্চ ২০২০ ||

  • চৈত্র ১৬ ১৪২৬

  • || ০৫ শা'বান ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
৩২২

নৌকার প্রচারে যত আকর্ষণ

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ২৩ জানুয়ারি ২০২০  

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে নৌকার মাঝি ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপসের প্রচারে নতুনমাত্র যুক্ত হচ্ছে প্রতিনিয়ত। যা সাধারণ মানুষকে আনন্দও দিচ্ছে।
তাপস আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী মনোনীত হওয়ার প্রথম থেকেই জনগণের মুখে হাসি ফুঁটেছে। তাপসের নির্বাচনী প্রচারণায় দলমত নির্বিশেষে দক্ষিণ  ঢাকাবাসী তাকে গ্রহণ করে অভূতপূর্ব সাড়া দিয়েছেন। 
আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলো আলাদাভাবে নির্বাচনী প্রচারে অংশ নিচ্ছে। প্রতিটা থানা, ওয়ার্ড, এমনকি কেন্দ্র ভিত্তিক কমিটি করে তাপসের পক্ষে কাজ করছে। পাশাপাশি নৌকার পক্ষে ঢাকাবাসী স্বতঃস্ফূর্তভাবে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন।

প্রার্থী বা সহযোগী সংগঠনের প্রচারণার সময় কেউ মাথায় তুলে নিয়েছেন নৌকা, কেউ আবার রাস্তা দিয়ে নৌকা চালিয়ে যাচ্ছেন। কেউ বাইসাইকেল তৈরি করেছেন নৌকার আদলে, কেউ আবার মাথায় চুলের কাটিং দিয়েছেন পাল তোলা নৌকার মতো।

তাদের সঙ্গে কথা বললে তারা জানান, প্রচারের স্বার্থে নয়, বরং ভালোবাসা থেকে নিজের খরচে এসব করে যাচ্ছেন তারা। শুধু বঙ্গবন্ধু, শেখ হাসিনা আর নৌকাকে ভালোবেসে এসব করছেন তারা। আর বঙ্গবন্ধু পরিবারের সন্তান হওয়ায় আন্তরিকতার সঙ্গে তাপসের জন্য প্রচার কাজ করছেন তারা।

এ তো গেলো ছেলেদের কথা। প্রচারে নারী নেত্রীরাও বিন্দুমাত্র পিছিয়ে নেই। ডিজিটাল পদ্ধতিতে নির্বাচনের প্রচারণায় অংশ নিয়ে ভোটেরদের দ্বারে দ্বারে গিয়ে ভোট চাচ্ছেন। মাঝে মাঝে মিছিল ও গান গেয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন। তাপসকে বিজয়ী করেই তারা ঘরে ফিরবেন বলে ঘোষণাও দিয়েছেন। 
এদিকে তাপস সকাল থেকে রাত নয়টা পর্যন্ত প্রচার চালাচ্ছেন। সবসময় তার আগমনের খবরে পুরো এলাকা লোকারণ‌্য হয়ে থাকে। নেতাকর্মী তো বটেই সাধারণ মানুষেরও প্রবল আগ্রহ দেখা গেছে। রিকশাচালকরা রিকশা থামিয়ে স্লোগানও দেন। পথচারী থমকে দাঁড়িয়ে তার প্রচার দেখে হাততালি দিয়ে স্বাগত জানান। দোকান থেকে কর্মচারীরা বেরিয়ে আসেন তাপসকে একনজর দেখতে, তাপসও তাদেরকে বুকে জড়িয়ে ধরেন।

তাপস ঢাকা দক্ষিণের জনগণের জন্য পাঁচটি  রূপরেখা দিয়েছেন। এতে আধুনিক ঢাকা গড়তে দীর্ঘ ত্রিশ বছর মেয়াদি মহাপরিকল্পনা প্রণয়নের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। 

সম্প্রতি তাপস ঢাকাবাসীকে দেয়া খোলা চিঠিতে বলেন, আমাদের এই ঢাকা  ঐতিহ্যমন্ডিত। এই ঢাকাতে জন্মেছি, বড় হয়েছি, সন্তানদের ভবিষ্যৎ নিয়েও স্বপ্ন দেখি এই ঢাকাকে ঘিরে। ঢাকা বলতে আমার বেড়ে উঠা এই ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন এলাকাকেই বুঝি।

তিনি আরো বলেন, ব্যথাতুর হীম বুকে তাকিয়ে দেখি, এখানেই পঁচাত্তরের ১৫ আগস্ট কালরাতে স্বপরিবারে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সঙ্গে হারিয়েছি আমার বাবা-মাকে। কিন্তু বিগত দিনে এখানেই পেয়েছি স্নেহ-ভালবাসা-বন্ধন। এই ভালবাসাকে পুঁজি করেই, স্বপ্নের উন্নত ঢাকার পথ চলায় আপনাদের আস্থা ও সমর্থনই আমার পাথেয়। আপনাদের সমর্থনে নির্বাচিত হলে নাগরিক সব মৌলিক সেবা ৯০ দিনের মধ্যে নিশ্চিত করব।

আজকের ময়মনসিংহ
আজকের ময়মনসিংহ
রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর