ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • বুধবার   ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ৭ ১৪২৭

  • || ০৫ সফর ১৪৪২

আজকের ময়মনসিংহ
৫৮

নির্বাচনী প্রচারণায় সংঘর্ষ, তদন্ত করে ব্যবস্থা

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ২৬ জানুয়ারি ২০২০  

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে নির্বাচনী প্রচারের সময় নৌকা ও বিএনপির কর্মী-সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনের (ইসি) জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীর।

রোববার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

এর আগে উত্তর সিটি কর্পোরেশনে বিএনপির মেয়রপ্রার্থী তাবিথ আউয়ালের নির্বাচনী প্রচারণায় হামলার তদন্ত প্রতিবেদন বিষয়ে ইসি সচিব বলেন, পুলিশ তদন্ত প্রতিবেদনে বলেছে দুই গ্রুপ পুলিশকে না জানিয়ে সেখানে গিয়েছে। দুই গ্রুপ মুখোমুখি হওয়ায় ধাক্কাধাক্কি হয়েছে, তাদের জানালে এমনটা হতো না। কমিশনকে দিয়ে বিষয়টি মিটিয়ে দেয়ার জন্য বলা হয়েছে।

নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেছেন তিনি রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছে তথ্য চাইলেও তাকে দেয়া হয়নি, এমন অভিযোগের বিষয়ে মো. আলমগীর বলেন, রিটার্নিং কর্মকর্তারা তথ্য দিতে বাধ্য। তবে তারা কমিশনকে জানাবে। যেহেতু কমিশনের বিষয়ে সেহেতু সিইসির কাছে আগে তথ্য জানাতে হবে। তবে সরাসরি কাউকে উত্তর দিতে পারবেন না। তিনি একজন কমিশনারের কাছে তথ্য দিতে বাধ্য না। দিলে পাঁচজনের কাছে দিতে হবে।

ইসি সচিব আরো বলেন, তিনি কি বুঝিয়েছেন জানি না। পাঁচজন কমিশনারকে নিয়ে কমিশন। তাদের কোন বিষয়ে দ্বিমত হয়, আবার আলোচনার মাধ্যমে একমতও হন। সে জন্য সুন্দর নির্বাচন হচ্ছে। কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কাজও ঠিক মতোই চলছে

কমিশনের সভায় সিটি নির্বাচনের আচরণবিধি লঙ্ঘনের বিষয়টি ছিল না, এ বিষয়ে প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, সচিবালয় শুধু আদেশ পালন করে। কমিশনাররা যা বলে সেটি নথিতে দেয়া জয়। পরে সিইসি অনুমোদন দিলে সেটি বাস্তবায়ন করা হয়, সম্পূর্ণ বিষয় কমিশনের। কি আলোচনা হবে, আর কি হবে না সেটি কমিশনের সিদ্ধান্ত।

জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর