ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • বৃহস্পতিবার   ২২ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ৮ ১৪২৮

  • || ০৯ রমজান ১৪৪২

আজকের ময়মনসিংহ

দরিদ্র বাবা আর চাকরি চান না, ছেলেকে বাঁচাতে আকুতি

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ১৩ নভেম্বর ২০১৯  

দরিদ্র কৃষক বাবার সন্তান মো. উজ্জল মিয়া (২৮)। তিনি সমাজ বিজ্ঞানে অনার্স-মাস্টার্স শেষ করেছেন। দরিদ্র পরিবারে জন্ম নেওয়া ৩ ভাই, ১ বোনের মধ্যে উজ্জল সবার বড়। এত দিন ধরে দরিদ্র বাবা শত কষ্টের মাঝেও ছেলের পড়ার খরচ চালিয়েছেন। বাবার স্বপ্ন ছিল ছেলে পড়া শেষে ভালো চাকরি করে সংসারের হাল ধরবে। কিন্তু সেই ছেলে এখন মৃত্যু পথযাত্রী। তার দুটি কিডনিই বিকল।

কৃষক আহম্মদ আলী এখন আর ছেলের চাকরি চান না। তিনি শুধু চান, তার ছেলে বেঁচে থাকুক। শত অভাব-অনটনেও যেন উজ্জল তার কাছে থাকেন। চিকিৎসক জানিয়েছেন, দ্রুত কিডনি ট্রান্সপ্ল্যান্ট করতে হবে। না হলে তাকে বাঁচানো যাবে না। এ চিকিৎসায় ২৫ লাখ টাকার মতো খরচ হতে পারে। টাকার পরিমাণের কথা শুনে দিশেহারা পরিবারটি।

উজ্জলের বাড়ি ময়মনসিংহের গৌরীপুর উপজেলার ভাংনামারী ইউনিয়নের গজারিয়া গ্রামে। তিনি ২০০৯-২০১০ সেশনে আনন্দ মোহন বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ থেকে অনার্স-মাস্টার্স শেষ করেন।

বর্তমানে পরিবারটির মাথায় যেন আকাশ ভেঙে পড়েছে। উজ্জলের বাবা-মা ছেলের জীবন বাঁচাতে সাহায্য কামনায় প্রতিবেশী, স্বজন, সুহৃদ ও জনপ্রতিনিধিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরছেন। কিন্তু যে সাহায্য পাচ্ছেন তা প্রয়োজনের তুলনায় খুবই সামান্য।

আহম্মদ আলী বলেন, ১ মাস ধরে উজ্জলের বন্ধুদের সহযোগিতায় চিকিৎসা চলছে। চিকিৎসক বলেছেন, ২৫ লাখ টাকা লাগতে পারে। কিন্তু এত টাকা খরচ করার মতো সামর্থ্য আমাদের নেই।

উজ্জলের মা আনোয়ারা খাতুন ছেলের জীবন বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রী ও দেশের হৃদয়বানদের সাহায্য কামনা করেছেন।

মেধাবী ছাত্র উজ্জলের চিকিৎসায় সাহায্য কামনা করে ডাচবাংলা ব্যাংক, কলতাপাড়া, ময়মনসিংহ শাখায় অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে। অ্যাকাউন্ট নম্বর ৭০১৭০১৯৯৯৭০৯৬। বিকাশ নম্বর ০১৯৩৭৯২৩১৮২।