ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’

রোববার   ১৯ জানুয়ারি ২০২০   মাঘ ৫ ১৪২৬   ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
১০৫

তুচ্ছ ঘটনার জেরে ছোট ভাইয়ের হাতে বড় ভাই খুন

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৪ আগস্ট ২০১৯  

ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ছোট ভাইয়ের সুপারি গাছের ফালির আঘাতে বড় ভাই আব্দুল কাদির (৫০) নিহত হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। নিহত আব্দুল কাদির উপজেলার মাছিমপুর গ্রামের বাসিন্দা।

শনিবার (৩ আগষ্ট) সকালে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মাছিমপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

নিহতের ছেলে মো. শাহজাহান জানান, শনিবার সকালে ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার মাছিমপুর গ্রামের নিজ বাড়ির উঠানে বসে বেতের কাজ করছিলেন তার বাবা আব্দুল কাদির। এ সময় ছোট চাচা (নিহতের ভাই) নিজের মেয়ে শাপলা বেগমকে একটি তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে গালাগালসহ মারধর করছিলেন। এ ঘটনার প্রতিবাদ করে আব্দুল কাদির এগিয়ে গিয়ে ধমক দেন। এর জের ধরে চাচা কাশেম ও চাচি নাজমা বেগম তার ওপর হামলা চালায়।

এরই এক পর্যায়ে চাচা কাশেম সুপারি গাছের ফালি দিয়ে আব্দুল কাদিরের শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঘাত করতে থাকে। এ সময় আঘাত তার অণ্ডকোষে লাগলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়ে জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। পরে তাকে উদ্ধার করে ঈশ্বরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। 

নিহতের স্ত্রী আমেনা বেগম বলেন, ‘আমার স্বামীর কোনো দোষ ছিল না। বিনা দোষে জামাই-বউ মিইল্যা পিডাইয়া মারছে। আমি এর সুষ্ঠু বিচার চাই।’

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহম্মেদ কবির জানান, ‘তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে খুনের ঘটনা ঘটেছে। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত ভাই ও ভাবীকে গ্রেফতারের চেষ্টা ও মামলার প্রস্তুতিও চলছে বলে জানান তিনি।

আজকের ময়মনসিংহ
আজকের ময়মনসিংহ
এই বিভাগের আরো খবর