ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’

শনিবার   ১৯ অক্টোবর ২০১৯   কার্তিক ৩ ১৪২৬   ১৯ সফর ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
১১৭

গৃহবধূর হাত-পা বেঁধে গণধর্ষণ

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯  

ময়মনসিংহের নান্দাইল উপজেলায় বেড়াতে যাওয়ার সময় পথে সিএনজিতে উঠিয়ে দেওয়ার কথা বলে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ভেতরে নিয়ে সাটার বন্ধ করে হাত-পা বেঁধে গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় আলম (৩৫) নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টার দিকে নান্দাইল চৌরাস্তা পেট্রোল পাম্প এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

এ ঘটনায় নান্দাইল মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ঈশ্বরগঞ্জ উপজেলার কাদিরভোলসোমা গ্রামের রুহুল আমিনের স্ত্রী নূরুন্নাহার (২৫)। তিনি বুধবার রাত ৮টার দিকে ঈশ্বরগঞ্জ থেকে নান্দাইল চৌরাস্তা পেট্রোল পাম্প এলাকায় এসে কেন্দুয়া যাওয়ার জন্য সিএনজি খুঁজতে থাকে। এ সময় নান্দাইল পূর্ব বারুইগ্রামের মৃত সিদ্দিকুর রহমান রঙ্গু মিয়ার ছেলে মোজাহিদ ওই গৃহবধূকে কেন্দুয়াগামী সিএনজিতে উঠিয়ে দেওয়ার কথা বলে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে নিয়ে যায়। পরে হঠাৎ ঘরটির সাটার বন্ধ করে গৃহবধূর হাত-পা বেঁধে জোরপূর্বক মোজাহিদসহ তার আরও চার সহযোগী মিলে গণধর্ষণ করে। 

পরে খবর পেয়ে নান্দাইল মডেল থানা পুলিশ ধর্ষিতা গৃহবধূকে উদ্ধার করলেও কোনো ধর্ষককে আটক করতে পারেনি। 

নান্দাইল মডেল থানার ওসি (তদন্ত) মো. আবুল হাসেম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় পুলিশ দক্ষিণ বাশঁহাটি গ্রামের মৌজালির ছেলে আলমকে (৩৫) আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত অন্যান্যদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আজকের ময়মনসিংহ
আজকের ময়মনসিংহ
এই বিভাগের আরো খবর