ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • শুক্রবার   ১০ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৬ ১৪২৬

  • || ১৬ শা'বান ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
৮৩

গফরগাঁওয়ে দুই শতাধিক বাঁশ ও তালগাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে দুই শতাধিক বাঁশ ও দুইটি বড় তালগাছ কেটে নিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এ ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার পাগলা থানাধীন টাঙ্গাব গ্রামে। এ ঘটনায় আজ বৃহস্পতিবার পাগলা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সদস্য নিজাম উদ্দিন।

অভিযোগ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার টাঙ্গাব গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মৃত আব্দুল হামিদ প্রায় ৪৫ বছর পূর্বে টাঙ্গাব মৌজার ৩৫০৮ ও ৩৫০৯ নম্বর দাগের ৩১. ২৫ শতাংশ জমি একই গ্রামের মৃত রোসমত আলীর কাছে অলিখিত ভাবে বিক্রি করেন। পরে জমি লিখে দেওয়ার কথা বলে রোসমত আলীর কাছ থেকে একাধিক বার টাকা নেন আব্দুল হামিদ। কিন্তু এক নম্বর খতিয়ানভুক্ত(খাস) হওয়ায় জমি লিখে দিতে না পারলেও টাকা ফেরত দেননি। এরপর থেকে মৃত রোসমত আলীর পরিবারের লোকজন জমিটি ভোগদখল করে আসছেন। পরবর্তীতে মৃত আব্দুল হামিদের পরিবারের লোকজন রোসমত আলীর পরিবারের লোকজনকে উচ্ছেদের হুমকি দিয়ে আসছিল। এ অবস্থায় গত মঙ্গলবার সকালে মৃত আব্দুল হামিদের ছেলে মানিক, মানিকের ছেলে সাত্তার, আক্তারসহ ১০-১২ জন লোক মৃত রোসমত আলীর বাড়ির পাশে বাঁশঝাড় থেকে দুই শতাধিক বাঁশ ও দুইটি বড় তাল গাছ কেটে নিয়ে যায়। এ সময় মৃত রোসমত আলীর পরিবারের লোকজন বাধা দিলেও তাদেরকে ভয় ও গালিগালাজ করে তাড়িয়ে দেয়।

পরে স্থানীয় ভাবে এ ঘটনার বিচার সালিশের আয়োজন করলেও অভিযুক্তরা উপস্থিত না হওয়ায় বিচার সালিশ হয়নি। নিরুপায় হয়ে মৃত রোসমত আলীর ছেলে নিজাম উদ্দিন আজ বৃহস্পতিবার পাগলা থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। 

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোফাজ্জল হোসেন সাগর এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন।

এ বিষয়ে অভিযোগকারী নিজাম উদ্দিন বলেন, মৃত আব্দুল হামিদ প্রতারণামূলকভাবে খাস জমি আমার বাবাকে দিয়ে একাধিক বার টাকা নিয়েছেন। আমরা ৪৫ বছর যাবৎ এই জমি ভোগদখল করছি। তাই আমরাই জমির দাবিদার।

এ ব্যাপারে অভিযুক্ত মানিকের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমি আমাদের জমি থেকে বাঁশ ও তালগাছ কেটেছি। কেউ বাধা দিলে হয়তো কাটতাম না।’

পাগলা থানার অফিসার ইনচার্জ শাহিনুজ্জামান খান বলেন, এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পেয়ে একজন অফিসারকে তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

আজকের ময়মনসিংহ
আজকের ময়মনসিংহ
ময়মনসিংহ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর