ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • শনিবার   ৩০ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৬ ১৪২৭

  • || ০৭ শাওয়াল ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
১২২

কলহের জেরেই খুন হন রিনা

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ২৬ অক্টোবর ২০১৯  

ময়মনসিংহের ত্রিশালে চেলেরঘাট সেতুর নিচ থেকে উদ্ধার হওয়া মরদেহটি গৃহবধূ রিনা খাতুনের। পরিবারের অভিযোগ, দাম্পত্য কলহের জের ধরেই তাকে খুন করা হয়েছে।

রিনা খাতুন মাগুরা সদর উপজেলার খানপুরের গ্রামের মো. মুরাদ মোল্লার মেয়ে। এ ঘটনায় শুক্রবার মামলা করেছেন মুরাদ মোল্লা।

মামলার এজাহারে বলে হয়ে, রিনা সাত বছর ধরে ঢাকায় পোশাক শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন। এখানে কিশোরগঞ্জের তাড়াইলের মো. রুবেলের সঙ্গে প্রেম হয় তার। চার বছর আগে বিয়েও করেন তারা। বিয়ের তিন বছর পর রিনা জানতে পারেন রুবেল আগে থেকেই বিবাহিত। বিষয়টি নিয়ে বিরোধের জেরে আট মাস আগে তাদের বিচ্ছেদ হয়। বিচ্ছেদের পর থেকেই রিনাকে প্রাণনাশসহ বিভিন্ন হুমকি দিচ্ছিলেন রুবেল।

এজাহারে আরো বলা হয়, বুধবার বিকেলে নিজেদের মধ্যে বিরোধের মীমাংসার কথা বলে রিনাকে বাসা থেকে নিয়ে আসে। পরে শ্বাাসরোধে হত্যা করে হত্যা মরদেহ খিরো নদের পাড়ে ফেলে দেন।

ত্রিশাল থানার ওসি আজিজুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার সকালে খিরো নদের চেলেরঘাট সেতুর নিচ থেকে রিনা খাতুনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহের ঠোঁটের উপরে ও নিচে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় রিনার বাবা মামলা করেছেন। আসামিকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।

ময়মনসিংহ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর