ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • শুক্রবার   ২৯ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪২৭

  • || ০৬ শাওয়াল ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
৩১৯

করোনা নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যাচারে ব্যস্ত তাসনিম খলিল

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ৯ এপ্রিল ২০২০  

দেশে উদ্ভূত করোনাভাইরাস পরিস্থিতি নিয়ে মিথ্যাচারে লিপ্ত হয়েছেন সুইডেন প্রবাসী অখ্যাত সাংবাদিক ও ভুঁইফোড় অনলাইন পত্রিকা নেত্র নিউজের সম্পাদক তাসনিম খলিল। বুধবার (৮ এপ্রিল) তিনি তার নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে এ সংক্রান্ত একটি স্ট্যাটাস দেন। বিশিষ্টজনদের অভিমত, সরকারকে চাপে ফেলতেই তাসনিম খলিল এভাবে স্ট্যাটাস দিয়ে মিথ্যাচারিতা করছেন। যা সম্পূর্ণ মনগড়া ও ভিত্তিহীন।

দায়িত্বশীল একটি সূত্র জানিয়েছে, তাসনিম খলিল জামায়াত মতাদর্শের একজন মানুষ। বর্তমানে রাজনৈতিক আশ্রয়ে আছেন সুইডেনে। বিভিন্ন সময়ে তিনি তার মালিকানাধীন অনলাইন পত্রিকা ‘নেত্র নিউজ’ ও নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে সরকার বিরোধী সংবাদ ও স্ট্যাটাস পরিবেশন করে মানুষকে বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা করেন। তারই ধারাবাহিকতায় বুধবার (৮ এপ্রিল) আবারো উসকানিমূলক স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি। সেখানে তিনি সরকারের উদ্দেশ্যে লিখেছেন, ‘প্রথমে ইতালি-ফেরত প্রবাসীদের দুষলেন। এরপর দুষলেন জুম্মার নামাজ পড়া মোল্লা-মুনশীদের। তারপর দুষলেন দলে দলে ঘরে ফেরা পাবলিককে। মীরজাদি আর রুবানার উপর দিয়েও কিছু গেছে। এখন সব দোষ ডাক্তারদের। কিছুতো ভবিষ্যতের জন্য রাখেন। দুইদিন পরেওতো বলির পাঁঠা আরো লাগবে। তখন কারে দুষবেন?’

তার এই স্ট্যাটাস সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যপ্রণোদিত উল্লেখ করে দেশের রাজনৈতিক বিশিষ্টজনরা বলছেন, তাসনিম খলিলের করোনাভাইরাসের লক্ষণ ও করণীয় সম্পর্কে কোন ধারণাই নেই। থাকলে তিনি স্ট্যাটাসে এরকম অর্বাচীনের মত কথা লিখতেন না। কারণ করোনাভাইরাস প্রতিরোধের প্রথম শর্তই হলো জনসমাগম এড়িয়ে চলা। আর সে কারণেই সরকার সবাইকে একত্রে না থাকার পরামর্শ দিয়েছে। বিশেষ করে যেখানে জনসমাবেশ হয় অর্থাৎ স্কুল-কলেজ-অফিস-আদালত-গণপরিবহন এসবকে বুঝিয়েছে। একই কথা বিশেষজ্ঞদেরও। অথচ তিনি বোকার মতো সরকারের খুঁত ধরতে গিয়ে মূর্খতার পরিচয় দিলেন। যা খুবই হাস্যকর। আর সবচেয়ে বড় কথা, যখন কোন কিছু তার মনের মতো না হয় এবং দলীয় মতাদর্শের বাইরে যায়, তখন তিনি রাষ্ট্রবিরোধী এইসব কর্মকাণ্ড পরিচালনা করেন। যার প্রমাণ দেশবাসী ইতোপূর্বে অনেকবার পেয়েছেন।

এ বিষয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পুলিশের একজন উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা বলেন, আমরা তাসনিম খলিলের নিউজ পোর্টাল ও তার আইডি পর্যবেক্ষণ করছি। কারণ, তিনি বরাবরই ফেক নিউজ ও গুজব ছড়িয়ে আসছেন। করোনা পরিস্থিতি নিয়েও তিনি উসকানিমূলক ও বিভ্রান্তিকর তথ্য ছড়াচ্ছেন। আমরা অচিরেই তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সুইডেন সরকারের সাথে যোগাযোগ করব।

প্রসঙ্গত, করোনাসহ সরকারের অন্যান্য উন্নয়ন কার্যক্রম নিয়ে দেশ ও বিদেশে বসে ক্রমাগত মিথ্যাচার করছেন বিএনপি-জামায়াতের কিছু পেইড এজেন্টরা। এদের মধ্যে অন্যতম হলেন, একেএম ওয়াহেদুজ্জামান, পিনাকী ভট্টাচার্য, শামসুল আলম, ডালিয়া লাকুরিয়া। দেশ ও দশের স্বার্থে এসব দেশবিরোধী ষড়যন্ত্রকারীদের গুজব এড়িয়ে চলতে দেশবাসীকে আহ্বান জানিয়েছেন বিশিষ্টজনরা।

জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর