ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’

শনিবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৫ ১৪২৬   ২১ মুহররম ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
৩৪

একটু সচেতনতা বাড়িয়ে নিজের ঘরটি রাখুন প্রশান্তিময়

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৪ আগস্ট ২০১৯  

সারাদিনের নানান ধকল সহ্য করে শান্তি পেতে সবাই ঘরে ফিরে আসেন। সবার কাছেই নিজেরটি হচ্ছে সবচাইতে বেশি প্রশান্তিময় স্থান। তাই ঘরবাড়ি অগোছালো থাকলে, তা তখন বিরক্তির কারণ হয়ে ওঠে।
লন্ডনভিত্তিক ‍মিনিষ্ট্রি অব কাম নামক একটি হোম ডিজাইন সংস্থার জরিপে জানা যায়, আপনার ঘরের ডিজাইন আর বাহ্যিক অবস্থা আপনার অনুভূতি নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। তাই জানতে হবে, কোন কোন ব্যাপারগুলো মাথায় রেখে আপনার ঘরটিকে প্রশান্তিময় করে তুলতে পারবেন। চলুন তবে জেনে নেয়া যাক সেই উপায়গুলো-

> সকল জিনিসপত্র একসঙ্গে রাখবেন না। আর বেশি জিনিসপত্র থাকারও কোনো দরকার নেই। যেসকল জিনিস আশেপাশে থাকলে অসুবিধা হবে তা না রাখাই ভালো। 
> নিজের ঘরবাড়ি পরিষ্কার রাখার কোনো বিকল্প নেই। প্রতিদিন অল্প একটু সময় ব্যয় করে ঘরের ধুলোবালি ঝেড়ে নিন।

> ঘরটি আরামদায়ক হওয়ার জন্য যতটা সম্ভব প্রাকৃতিক আলোর আনাগোনা থাকা উচিত। কড়া ফ্লুরোসেন্ট লাইট থাকলে এর তীব্র আলো মনের উপরও বিরূপ প্রভাব ফেলে।

> শোবার ঘর একটি বাড়ির সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ জায়গা। অনেকেই আছেন শোবার ঘরকে নিজের দামী জিনিসপত্রের আখড়া বানিয়ে ফেলেন। যা একদমই ভুল। তাই শোবার ঘর থেকে সকল ধরনের প্রযুক্তি পণ্যসহ দামী জিনিসপত্র সরিয়ে ফেলুন।

> ঘরের মধ্যে প্রশান্তির ভাব আনার জন্য সারল্য ব্যাপারটির কোনো বিকল্প নেই। তাই ঘরকে বেশি রঙচঙে করে সাজানোর দরকার নেই। অতিরিক্ত ছবি অথবা পেইন্টিং ব্যবহার না করে আপনার খুব পছন্দের জিনিসপত্রগুলো আপনার কাছে রাখার চেষ্টা করুন।  

> সুবজ রঙ আপনার স্নায়ুকে প্রশান্তি দেয়। তাই ঘরের কোনায় কোনায় অথবা সুবিধাজনক জায়গায় গাছ লাগাতে পারেন।

আজকের ময়মনসিংহ
আজকের ময়মনসিংহ