ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • রোববার   ৩১ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৬ ১৪২৭

  • || ০৮ শাওয়াল ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
৮০৪

ময়মনসিংহে

একই আসনে বিএনপিতে চাচা-ভাতিজার মনোনয়ন

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ২৮ নভেম্বর ২০১৮  

ময়মনসিংহ-৯ নান্দাইল আসনে বিএনপির গুলশান কার্যালয় থেকে রাত তিনটার সময় মনোনয়নের চিঠি হাতে নিয়েই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবি আপলোড করেন প্রবীণ রাজনীতিবিদ, সাবেক চারবারের এমপি খুররম খান চৌধুরী। আর রাত পোহালেই আজ মঙ্গলবার সকালে মনোনয়নের চিঠি পেলেন ভাতিজা ইয়াসের খান চৌধুরী। এ নিয়ে নেতাকর্মীদের মাঝে সৃষ্টি হয়েছে ধুম্রজাল। তবে দলের নীতিনির্ধারকরা বলছেন এটা এক ধরনের কৌশল।

স্থানীয় সূত্র জানায়, এ আসনটিতে তিনবার (১৯৭৯, ১৯৮৮, ২০০১) ও ময়মনসিং-৮ ঈশ্বরগঞ্জ আসন (১৯৯১) থেকে এলবার মোট চারবার জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন খুরররম খান চৌধুরী। এর মধ্যে দশম সংসদ নির্বাচন ছাড়া প্রতিটি নির্বাচনেও তিনি অংশগ্রহণ করেন।

এই অবস্থায় প্রবীণ এই রাজনৈতিক একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দল থেকে খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয় থেকে মনোনয়নের চিঠি পান গতকাল সোমবার রাত তিনটার সময়। এ খবর এলাকায় পৌঁছলে দলীয় নেতাকর্মীদের মাঝে আনন্দের জোয়াড় বইতে শুরু করে। বিভিন্ন এলাকার দলী নেতাকর্মীরা চাঙ্গা হয়ে আনন্দ শোভা যাত্রা বের করে।

এ অবস্থায় সকালে নেতাকে সাদরে গ্রহণ করতে প্রস্তুত নেয় নেতাকর্মীরা। তারা মোটর শোভাযাত্রা করে নেতাকে এগিয়ে আনতে যাওয়ার সময় খবর আসে ভাতিজা ইয়াসের খান চৌধুরীকে মনোনয়নের চিঠি দেওয়া হয়। এই চিঠি নিয়ে তিনিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজের ছবি আপলোড করেন। এরপর শোভা যাত্রাটি ‘হরিষে বিষাদে’ পরিণত হয়।

জানাযায়, ইয়াসের খান চৌরীর বাবা আনোয়ার হোসেন খান চৌধুরী ময়মনসিংহ-৯ নান্দাইল আসন থেকে ১৯৯১ সালে বিএনপির প্রার্থী হয়ে জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। তার এক মাত্র ছেলে লন্ডন প্রবাসী ইয়াসের খান চৌধুরী মনোনয়নের আশ্বাসে গত এক বছর ধরে দেশে এসে রাজনৈতিক তৎপরতা দেখাতে শুরু করেন। নিজেকে তারেক রহমানে বন্ধু পরিচয় দিয়ে সম্প্রতি কিছু পোস্টার সাটিয়ে তিনি এলাকা বাসীর নজরে আসেন।

এ বিষয়ে খুররম খান চৌধুরী বলেন, প্রায় সব আসনেই চিঠি দুইজনকে দেওয়া হচ্ছে। এতে নীতিনির্ধরকরা একটা কৌশল অবলম্বন করছেন। বিকল্প প্রার্থী হিসেবে ইয়াসের খানকে রাখা হয়েছে।

অপরদিকে ইয়াসের খান চৌধুরী বলেন, আমাকে এক নম্বর চিহ্নিত করে চিঠি দেওয়া হয়েছে উনাকে (চাচা) বিকল্প রাখা হয়েছে।

ময়মনসিংহ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর