ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • বৃহস্পতিবার   ২২ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ৮ ১৪২৮

  • || ০৯ রমজান ১৪৪২

আজকের ময়মনসিংহ

উহানে লকডাউন ওঠার পর নারী নাপিতের কর্মব্যস্ততা

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ৩১ মার্চ ২০২০  

করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীনের উহান শহরের লকডাউন উঠে গেছে কয়েকদিন হলো। এর ফলে নারী নাপিত শিওং জুয়ানের কর্মব্যস্ততা আগের চেয়ে অনেক বেশি বেড়ে গেছে।

৩৯ বছর বয়সী শিওং এখন একটি ইলেকট্রিক বাইসাইকেল নিয়ে সারাদিন ঘুর বেড়ান এবং লোকের চুল কেটে দেন। গত জানুয়ারিতে উহান শহরকে বন্ধ করে দেওয়ার পর দীর্ঘ প্রায় তিন মাস ঘরে আটকে পড়ে থাকার পর তিনি ফের কাজ শুরু করেছেন।

তার এক খদ্দের বলেন, গত ডিসেম্বরে আমি সর্বশেষ চুল কাটিয়েছি। ফলে আমার চুল অনেক বড় হয়ে গেছে। যা আমি সহ্য করতে পারছিলাম না।

লকডাউনের সময় শিওং বাড়িতে তার দুই সন্তানের দেখাশোনা করে সময় কাটান। তিস সপ্তাহ আগে তিনি পুনরায় ঘর থেকে বের হতে শুরু করেন।

শিওং জানান, সাধারণত সকাল ৮টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত অন্তত ৭০ জন খদ্দেরের চুল কাটছেন তিনি। বিনিময়ে প্রতিজনের কাছ থেকে ৩০ ইউয়ান করে নিচ্ছেন। অথচ সেলুনে যখন কাজ করতেন তখন তিনি প্রতিজন খদ্দেরের কাছ থেকে ১৫৬ ইউয়ান করে নিতেন।

তবে তিনি যে সেলুনে কাজ করতেন তা খুলতে আরো কয়েকদিন লেগে যাবে।

করোন সংক্রমণের ঝুঁকি সম্পর্কে প্রশ্ন করা হলে শিওং জানান, তিনি সর্বোচ্চ সতর্কতার সঙ্গে খদ্দেরদের চুল কাটেন। তবে এখন যেহেতু সমাজের তাকে প্রয়োজন তাই তার পক্ষে যতটুকু সম্ভব ততটুকু করছেন তিনি।