ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’
  • বৃহস্পতিবার   ১৬ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ৩১ ১৪২৭

  • || ২৫ জ্বিলকদ ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
৩৯৮

অলৌকিক এই মন্দির দিনে মাত্র দু’বার সমুদ্রে ভেসে উঠে

আজকের ময়মনসিংহ

প্রকাশিত: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

চোখের সামনে বিস্তৃত এক জলরাশি। তারই মাঝে চোখের পলকে হঠাৎই ভেসে উঠলো একটি বড় মন্দির। এমন দৃশ্য কল্পনা করতে যেন গায়ে কাটা দেয়! সত্যিই এমন এক অলৌকিক দৃশ্যের দেখা মেলে আরব সাগরে। 

 

শিব মন্দির

শিব মন্দির

বলছি, এক শিব মন্দিরের কথা। দিনে মাত্র কয়েক ঘণ্টার জন্য সমূদ্রে ভেসে ওঠে মন্দিরটি। আবার একসময় পানিতেও অদৃশ্য হয়ে যায়। মন্দিরটির নাম স্তম্ভেশ্বর মহাদেব মন্দির। এই মন্দিরটি গুজরাট রাজ্যের ভোদোদরা শহর থেকে ৬০ কিলোমিটার দূরে কাবি কাম্বোই গ্রামে অবস্থিত। এই মন্দিরটির বয়স প্রায় দেড়শ বছর। এটি আরব সাগরের খাম্বট উপসাগরের তীরে অবস্থিত। 

 

জোয়ারের সময় মন্দিরটি ডুবে যায়

জোয়ারের সময় মন্দিরটি ডুবে যায়

এই মন্দিরটি দিনে দুইবার অদৃশ্য হয়ে যায়। কারণ এই মন্দিরটি দিনের বেশিরভাগ সময়ই সমুদ্রের জলে নিমজ্জিত থাকে। দকেন এমনটি ঘটে জানেন কি? সমুদ্রে জোয়ার এলে মন্দিরটি ডুবে যায়। আবার ভাটা পড়লে মন্দিরটি পানির মাঝে দৃষ্টিগোচর হয়। জানা গেছে, দিনে দুইবার জোয়ারে সময় মন্দিরটি অদৃশ্য হয়ে যায়। যখন আবার মন্দিরটি দৃশ্যমান হয় ভক্তরা শিব ঠাকুরকে দর্শন ও পূজা দিতে সেখানে যান। 

 

দর্শনার্থীরা এ দৃশ্য উপভোগ করতে ভীড় জমায় সাগর পাড়ে

দর্শনার্থীরা এ দৃশ্য উপভোগ করতে ভীড় জমায় সাগর পাড়ে

অনেকেই বলে থাকেন, এই মন্দির নির্মাণ করেছিলেন পঞ্চপাণ্ডবেরা। নিজেদের পাপ মোচন করতেই নাকি তারা এই মন্দিরটি নির্মাণ করেছিলেন। এই মন্দিরের উচ্চতা ২০ ফুট। যা বিশেষ সময় ছাড়া সবসময়ই থাকে সাগরের নীচে। সময় হলে তবেই দেখা মেলে এই মন্দিরের। এই দৃশ্য দেখার জন্যই বহু দর্শনার্থী ভিড় করেন সমুদ্র তটে। মনের আশা পূরণে এই মন্দিরে ভিড় জমান বহু পুণ্যার্থী।

সূত্র: নিউজডিফাইভ

ইত্যাদি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর