ব্রেকিং:
বিয়ে বাড়িতে আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ! চামড়া সংরক্ষণ যথাযথভাবে করা হয়েছে: শিল্প সচিববঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড তদন্তে কমিশন গঠনের দাবি তথ্যমন্ত্রীর ‘এখনো ষড়যন্ত্র চলছে, বাতাসে চক্রান্তের গন্ধ’ ‘চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশে পাঠানো হবে’

শনিবার   ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ৫ ১৪২৬   ২১ মুহররম ১৪৪১

আজকের ময়মনসিংহ
১০৭

অবশেষে চলেই গেলেন সেই ধর্ষিতা কলেজছাত্রী

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৭ আগস্ট ২০১৯  

মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে চলেই গেলেন সেই ধর্ষিতা কলেজছাত্রী। ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আইসিইউতে দুই দিন মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করে রোববার তার মৃত্যু হয়েছে।

গত ২১ আগস্ট বেড়ানোর কথা বলে ওই কলেজছাত্রীর ফুফাতো ভাই এর চাচাতো ভাই এনজিও কর্মী আলমগীর তার কর্মস্থল ময়মনসিংহের তারাকান্দায় নিয়ে যায়। পরে কোকের সঙ্গে চেতনা নাশক ট্যাবলেট মিশিয়ে পান করালে কলেজছাত্রী অজ্ঞান হয়ে পড়ে। এরপর তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করলে অসুস্থ হতে থাকে ওই কলেজছাত্রী।

পরদিন গরমে অসুস্থ হয়েছে বলে কলেজছাত্রীর মাকে খবর দিয়ে শ্যামগঞ্জ রেললাইন এলাকায় মায়ের হাতে তাকে তুলে দেয়া হয়। এরপর নেত্রকোনা আধুনিক হাসপাতালে নিয়ে আসলে সেখান থেকে ময়মনসিংহে প্রেরণ করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি দেখে তাকে আইসিউতে রাখা হয়।

এ ঘটনায় ওই কলেজছাত্রীর মা বাদী হয়ে রোববার রাতেই আসামি আলমগীরের নাম উল্লেখসহ আরো দুই থেকে তিনজনকে অজ্ঞাত করে পূবর্ধলা থানায় মামলা করেন।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত নেত্রকোনা সদর উপজেলার শ্রীপুর বালী গ্রামের হাশেম উদ্দিনের ছেলে আলমগীরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। পূর্বধলা থানার ওসি মো. তাওহীদুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নেত্রকোনা সদর থানার সহযোগিতায় রোববার রাতেই আসামি আলমগীরকে গ্রেফতার করে পূর্বধলা থানায় পুলিশ।

আজকের ময়মনসিংহ
আজকের ময়মনসিংহ
এই বিভাগের আরো খবর